ঈশ্বরদীতে প্রশাসনের অব্যাহত অভিযানের মধ্যেও মাদকের আমদানী বিক্রি থামছেনা

0
82

সেলিম আহমেদ, ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি ॥ ঈশ্বরদীতে পুলিশ, ডিবি পুলিশ, র‌্যাব, এবং মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অব্যাহত অভিযানের পরও মাদকের আমদানী ও বিক্রি বন্ধ হচ্ছেনা। বরং মুলাডুলি হাজারিপাড়া, পাকশী হঠাৎপাড়া, বিমানবন্দর সড়কের বিভিন্ন পয়েন্ট, মাঝদিয়া পুরাতন রেললাইন, ফতেমোহাম্মদপুর, ও বাজার রোডের মেথরপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় মাদকের ব্যবসা ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। মাদক ব্যবসায়ীরা মাঝে মধ্যেই কৌশল রুট পরিবর্তন করে ইয়াবা, ফেন্সিডিল, হিরোইন, দেশী-বিদেশী মদ ও গাঁজা আমদানী করছে। এতে ক্রমান্বয়ে যুব সমাজ নেশায় আক্রান্ত হয়ে ধংসের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এসব নেশার ছোবল থেকে মেয়েরাও রা পাচ্ছেনা। অনেক পরিবারের মেয়ে ও শিার্থীরাও আক্রান্ত হয়ে পড়েছে। ফলে প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন পরিবারে মাদকাশক্ত ছেলে-মেয়ের জন্য নানা সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

বিভিন্ন এলাকার ভুক্তভোগী প্রত্যদর্শী ও মাদক ব্যবসায়ীদের একাধিক সুত্রমতে, সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের মাদক বিরোধী তৎপরতা বৃদ্ধি হলেও মাদক আমদানী কারক ও বিক্রেতারা কৌশল ও রুট পরিবর্তন করে বহাল তবিয়তে মাদক আমদানী বিক্রি চালিয়ে যাচ্ছে। প্রশাসনের দু’একজন চতুর সদস্যের বিরুদ্ধে নিয়মিত মাসোহারা নেওয়ারও অভিযোগ রয়েছে। ঈশ্বরদী শহরে সাম্প্রতিক সময়ে পুলিশের মাদক বিরোধী তৎপরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় ব্যবসায়ীদের আমদানী -বিক্রির কৌশল ও রুট পরিবর্তন হয়েছে। তারা চারঘাট, বাঘা, লালপুর হয়ে পদ্মা নদী দিয়ে পাকশী পদ্মা নদীর পল্টন ঘাট ও তিলকপুরে এবং বিভিন্ন ট্রেন রুটে মেথরপাড়াসহ ঈশ্বরদীর বিভিন্ন অঞ্চলে মাদক আমদানী করছে। পরে সে সব স্থান থেকে ঈশ্বরদীর বিভিন্ন এলাকাসহ ঈশ্বরদীর বাইরে পাচার করা হচ্ছে।

মাদক ব্যবসার গডফাদারদের মাদকের ক্যারিয়ার হিসেবে কিছু মহিলা ও জিন্সপ্যান্ট পড়া কলেজগামি কিছু যুবক রয়েছে। যাদের বেশির ভাগের বাসাবাড়ি শহরের বিভিন্ন এলাকায়। পোষাক ও চলন বলনে মাদকের ক্যারিয়ারদের দেখে সহজে কেউ বুঝতে পারবেনা। সূএমতে, সংশ্লিষ্ট সংস্থার কতিপয় সদস্যের সাথে মাসিক চুক্তি থাকায় রেলগেট মেথরপাড়া এলাকার অজয়-বিজয়, টারজানসহ বাজারের একাধিক দোকানে দেশী-বিদেশী মদ বিক্রি বন্ধ হচ্ছেনা। ভুক্তভোগীরা এসব আমদানী ও বিক্রি বন্ধে ঈশ্বরদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ঈশ্বরদী সার্কেল ও ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসির জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY