ঈশ্বরদীতে শ্রমিকলীগ নেতারা স্টেশন সুপারকে পেটালেন

0
60

সেলিম আহমেদ, ঈশ্বরদী সংবাদদাতা ॥আজ (২০ মার্চ ) মঙ্গলবার সকালে ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফরমে রেলের বিশেষ সেবা সপ্তাহের অনুষ্ঠান চলাকালে জনসম্মুখে এ ঘটনা ঘটে।


প্রত্যদর্শীরা জানান, আজ সকালে ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফরমে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের আয়োজনে রেলের বিশেষ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে আলোচনা সভা, র‌্যালি ও লিফলেট বিতরনের কর্মসূচী চলছিল। র‌্যালী শুরুর সময় ঈশ্বরদী রেলওয়ে শ্রমিকলীগের নেতারা এসে র‌্যালিতে দাঁড়ানো অবস্থায় জনসম্মুখে স্টেশন সুপার আব্দুল করিমকে পাজাকোলে তুলে সহকারি স্টেশন মাস্টারের কক্ষে নিয়ে কিল ঘুষি মারতে থাকে। এসময় ভারপ্রাপ্ত ডিআরএম ও পাকশী বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ আসাদুল হকসহ বিভাগীয় রেলের অন্যান্য কর্মকর্তারা তাকে উদ্ধার করেন। উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি সামলে নিয়ে র‌্যালি শুরু করা হয়। র‌্যালি শেষে স্টেশন সুপারের সঙ্গে শ্রমিকলীগ নেতাদের সমঝোতা করিয়ে দেন রেল কর্মকর্তারা। এসময় ঈশ্বরদী রেল শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক আসলাম উদ্দিন মিলনসহ নেতারা ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।
ঘটনা প্রসঙ্গে ঈশ্বরদী রেলওয়ে শ্রমিকলীগের সভাপতি রফিকুল হাসান স্বপন বলেন, সরকারি কর্মসূচীতে আমাদের দাওয়াত না দিয়ে বিএনপির লোকজনদের দাওয়াত দেওয়া হয়েছে এ কারণে আমরা অনুষ্ঠানস্থলে গিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছি। তবে মারধরের কথা অস্বীকার করে তিনি বলেন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ‘ঘটনাটি’ সমঝোতা করা হয়েছে।
ঈশ্বরদীর স্টেশন সুপার (এসএস) আব্দুল করিম বলেন, এ অনুষ্ঠানে তাদের দাওয়াত না দেওয়ার অভিযোগ এনে তারা আমাকে লাঞ্ছিত করেছে, কিন্তু এ অনুষ্ঠানটি পাকশী বিভাগীয় রেলের, ফলে আমি দাওয়াত দেওয়ার কেউ না তার পরেও উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জাহাঙ্গির হোসেনকে আমি অনুষ্ঠান সম্পর্কে আগেই জানিয়েছিলাম।
পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের ভারপ্রাপ্ত ম্যানেজার (ডিআরএম) ও পাকশী বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ আসাদুল হক বলেন, ভুল বুঝাবুঝিতে ঘটনাটি ঘটেছে তবে ভুল বুঝতে পেরে তাদের মধ্যে সমঝোতা করিয়ে আমরা সেবা সপ্তাহের অনুষ্ঠান পালন করেছি।

LEAVE A REPLY