ঈশ্বরদীর সলিমপুরে অ্যাজমা রোগীদের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

0
68

সেলিম আহমেদ, ঈশ্বরদী থেকে ॥ আমাদের ভিশন অ্যাজমা রাখব নিয়ন্ত্রণ, নেই কোন ভয় অ্যাজমা নিয়ন্ত্রণ হয় এই শ্লোগাণকে প্রতিপাদ্য করে গতকাল শুক্রবার দিন ব্যাপি ঈশ্বরদী উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদে অ্যাজমা রোগীদের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অ্যাজমা রোগীদের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ বাবলু মালিথা।
বাংলাদেশ অ্যাজমা চেক ফাউন্ডেশন ঈশ্বরদী শাখার সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান বিশ্বাস-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই মেডিকেল ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ অ্যাজমা চেক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোশাহেদ উদ্দিন চৌধুরী, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলী মালিথা, প্রধান সমন্বয়ক মোঃ নাসির উদ্দিন রিপন খান, সংগঠনের সহ-সভাপতি ফজলুর রহমান মালিথা, সাধারণ সম্পাদক জহুরুল হক পুনো, মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন রুমি, সাবেক ভিপি মুরাদ আলী মালিথা ও শ্রমিক নেতা জাহিদুল ইসলাম জাহিদ প্রমূখ। বাংলাদেশ অ্যাজমা চেক ফাউন্ডেশন ঈশ্বরদী শাখার আয়োজনে ঈশ্বরদী উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদে অনুষ্ঠিত এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে শতাধিক অ্যাজমা রোগী চিকিৎসা সেবা গ্রহন করেন।
মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধনকালে বক্তারা বলেন, অ্যাজমা রোগের প্রাথমিক চিকিৎসক রোগী নিজেই। ডাক্তার কেবলমাত্র পরামর্শদাতা। অ্যাজমা হলে কি করণীয় সেই সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা ও নিয়ন্ত্রণে রাখার বিষয় নিয়েই বাংলাদেশ অ্যাজমা চেক ফাউন্ডেশন সেবা প্রদান করছে। একজন অ্যাজমা রোগী ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ি নিয়ম মেনে চলতে হবে। ডাক্তার যে সকল খাবার খেতে নিষেধ করবেন তা পরিহার করতে হবে। স্বাভাবিক জিবন যাপন করতে হবে। ধুলাবালি থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে, তাহলেই একজন অ্যাজমা রোগী সুস্থ্য থাকবেন। শুধু ওষুধ খেলেই চলবেনা। অ্যাজমা রোগীদের চিকিৎসার জন্য ঈশ্বরদীতে একটি হাসপাতাল নির্মাণের দাবি তোলেন।

LEAVE A REPLY