কবি তাপস চক্রবর্তী এর বাস্তব ধর্মী কবিতা ‘’ প্রিয় ঢাকা এবং কমলা রোদ ‘’

0
168
কবি তাপস চক্রবর্তী

প্রিয় ঢাকা এবং কমলা রোদ

তাপস চক্রবর্তী

একগুচ্ছ কমলা রোদ এবং জামফল কুড়ানোর বিহ্বলিত শুভেচ্ছা-
প্রিয় ঢাকা।
চুল পেকেছে-কলপের মন ভুলা হাসির ফাঁকে-বাঁকে
কতিপয় কুশল বিনিময়।
তারপর ঝাপটে জড়িয়ে ধরা বুকের গহনে
কতো কথা—-
নিরবে
নৈঃশব্দের নতুন স্বপ্নের চোখে চোখ
ছাপা শব্দের প্রসবে অমূল্য রতন দেখা
আমার মননে-আমার চয়নে।

ফ্রাইড রাইসে চিকেন সবজির পরতে পরতে-
কিছু কথা
কিছু গান
কিছু ব্যথা
অবশিষ্ট আজ কবিতার কথা–

ঠোঁট বুজে আসে চোখ ভিজে যায
ঋষির গল্প নিম আঁধার–
মঈন বেনসন হ্যাজক জ্বালায় নিমজ্জিত সন্ধ্যায়
জানি আমাদের বাবর সম্রাট নয়-
তবুও তোলপার বাক্যের মন্ত্রণায়
আরমান ব্যস্ত তবুও স্বপ্ন খুঁজে নিতে ন্যস্ত পাঠক।

নৃ’র স্টলে জমে ওঠা জলসায়-
প্রদীপ বাবুর বারোয়ারি গান
বাঁশিতে নিমগ্ন বিপ্রতীপ।
অভিলাষ থামে ব্যস্ত শহরে রাতের পাহারাদার
হাজার আলোয় রঙিন হয় আমাদের বইমেলা
তবুও মনের কোণে জাগে জেগেছে পুলকের বিষণ্নতা।

সালেহিন তোমাকে বলা ভালবাসা শেষ কথা
অনুপ শুনছিস্, তোকে বলি-বলেছি হাজারবার
একদিন জাগবে-ই আমার অবহেলিত বসুন্ধরা।
তবুও দেখ ধুলো মাখা ব্যস্ত শহর
ব্যস্ত শরীর,
ব্যস্ত হয়েছে আমার বইমেলা।

চশমার ফাঁকে দেখি রহস্যময়ী টুপির ভাঁজ
টুপির ভাঁজে দ্বীপ্ত পুরুষ
তাই ভীরু চোখে আঁকি সুপুরুষ তোমায়–
কবিতার মতো হাফিজ সত্য সুন্দর তুমি,
তোমাতে-ই স্থির ভালো লাগা।

মাদুলিতে ধুম্রয়িত চা-আধপোড়া সিগারেট
কবিতায় মশগুল পরিতোষ হালদার
কবিতার ঠোঁটে উজ্জ্বল অারণ্যক টিটু
কবিতার ভালে রঙিন স্বপ্ন আঁকে
কবিতার জুটি অরবিন্দ অপর্ণা।

রমনা কালীবাড়ির উঠোনে কুকুর করছে খেলা
নাটমন্দিরে জোটবদ্ধ পুরোহিত যজ্ঞ আগুন মেলা
তবুও কবিরা কবিতার মশগুল
কবিতায় যতো ভালোবাসা
একদিন না একদিন ছড়িয়ে পড়বে-
পড়ছে ঝাড়বাতির উজ্জ্বল আলোকছটা।
এই প্রত্যয়ে স্বকণ্ঠে রঙিন পাঠের আসর
শেষবিকেলে আবির আলোয় আলোকিত
শামীম ইকবাল সোহান দীপ্ত কবিকূল।
জীবন্ত কবিতা হয় রোজ বিস্কিটের মর্মর শব্দে–
প্রলয় হুঙ্কার তুলে শব্দপুরুষ-শব্দের চাষাভুষা।

গৌর পথে রথ থামিয়ে চিৎকার করে দাদা-দাদা
গৌতম লুকিয়ে মিটিং করে বিভৎস সংলাপ-
ভাগিনা কানাই বড় ভালো মলিন ছিলো না সন্ধ্যা।

হায় তাপস বলে চিৎকার করে প্রিয় মতি ভাই
সোহেল ভাই জড়িয়ে ধরেন শব্দের নিরবতায়
বিগত স্বপ্নকাহনের হিসেব কষেন আমজাদ ভাই

এবার ফিরবো
যেতে হবে-চলে যাবো সমুদ্রকূল
তাই বলি ভালো থেকো প্রিয় তিলোত্তমা
আর কি কখনও এমন করে হবে দেখা?
এমন করে বুকে জড়ানো কথায়
আর কি স্থির হবে এমন আবির সন্ধ্যা?
এবার ফিরবো
যেতে হবে-জন্মের নিরন্তর ছোঁয়ায়
ভালো থেকো প্রিয় ঢাকা প্রিয় বইমেলা
আবার যদি কখনও ডাকো,
আসবো
বলবো বুকের জমানো আমার যতো কথা।
লেখক পরিচিতি : নাট্যকার, গল্পকার ও কবি

LEAVE A REPLY