কবি সঞ্জিত মণ্ডল এর আন্তর্জাতিক নারী দিবসের কবিতার !! “নারী”!!

0
107
কবি সঞ্জিত মণ্ডল,

!! “নারী”!!

সঞ্জিত মণ্ডল

(প্রতিভা সন্ধান কাব্য পরিষদ এ ৮.০৩.২০১৮ তারিখের সেরা কবিতা)

আমি নারী, আমি জল সইতে পারি,
যদি হই সেদিনের বাঁধ ভাঙা নদীটির মতো।
তুমি চেয়েছিলে জল, সুশীতল নির্মল,
আকাশের এক দৃষ্টে চেয়ে থাকা মতো।
সেও দিতে পারি,হারানো দিনের মতো
রৌদ্র ক্লান্ত পথিকের পিপাসার জল
দিয়েছি তো কত,ঠিক যেন জনমের মতো।

তুমি ভুলে গেছ কত,ঠিক কবে, কত যুগ হতে
কতখানি অমৃত চেয়েছিলে দুটি হাত পেতে।
কোনো কৃপণতা কভু ছিল না আমার।
তবু তুমি জগতের বিচার সভাতে
দায় মুক্ত হতে গেলে নির্লজ্জের মতো!
মুখ বুঁজে সয়েছি তো কত,
ঘৃণা আর অপমান যতো,
সব সুখ পাওয়া হলে পরে,উথলিয়ে পড়ে,
বিদ্বেষের বাণী যতো, লাল চোখভরা হিংসা
কুটিলতা যতো।সকলি আমার তরে
জানি আজও তোলা আছে জীবনের মতো।

তবু জল সয়েছি আবার।
হিংসার কুটিল আকার পারেনি থামাতে তবু
জঠরেতে কত স্থান দিয়েছি তোমায়!
ভূমিষ্ঠ হয়েছ কত বেদনার রস রক্ত জলে,
সে আমারই কোলে,অমৃতের স্বাদ পাবে বলে
আজ তুমি ভুলে গেলে সব!
ঠিক কতখানি প্রেমে কতকিছু সাধনার ফলে
তুমি এসেছিলে কোলে,
একখানি ভালোবাসা মতো।

বড় হয়ে সব ভুলে গেলে!
আমিই সেজেছি প্রেমী, জায়া ও জননী
ভগিনী দুহিতা, যুগে যুগে জীবনে জীবনে।
তুমি দিয়েছিলে যতো মায়া
সে মায়ার হাতছানি সংসারের কায়া
আমিই গড়েছি তুলে, প্রাণবন্ত সৈনিকের মতো।
ফসল তুলেছ তুমি যতো
নির্যাতন অবহেলা সয়েছি যে ততো।
লাঞ্ছিত হয়েছি বারেবার।
তবু যদি অধিকার, দিল না সমাজ
তবু কেন এই বেঁচে থাকা দিশেহারা ছন্নছাড়া
যত নারী আজ।

তাই আমি অভাগিনী নারী
যতো অবহেলা সয়ে পারি
হাল ধরি সংসারের বিক্ষুব্ধ নদীর তরী
পার হই দুস্তর সাগর,মরুভূমি তেপান্তর কত।
তুমি জানো ভালো করে,আমিই প্রেরণা হয়ে
এক টুকরো স্বপ্ন তবু দিয়েছি তোমায়।
তুমি ছিলে উদভ্রান্ত পথিক
আমি হই পিপাসার জল।
তুমি রৌদ্রুক্লান্ত পদাতিক
আমি হয়েছিনু বটছায়া।
নিয়ে মোর সবটুকু মায়া।

তবু তোমাদের শুনি কত কোলাহল।
কত কিছু নাহি জানি,
কত দিতে পারিনাই আমি,
দোষ তাই প্রহরে প্রহরে,অবাক হয়েছি শুনি।
জেনে রেখো কোনো প্রতিদান কভু
চাইনি তো আমি।
শুধু চাই প্রতি সম্মান,সে যে বিধাতার দান,
তোমাদের মনে হয়,সে তোমার লজ্জার মান।
দিতে তাই কুন্ঠিত হলে বুঝি এতো।

আগে বুঝিনিতো কোনো গানে
আমারই সে অমৃত পানে ধন্য হয়েছ যতো
ততখানি ঘৃণা ভরে রাখিয়াছ জনমের মতো।
পুরুষের স্পর্ধা আর নারীর সুশান্ত ভাব
সেই নিয়ে সংসার সেটা জানো নাতো!
তুমি বন্ধু, তুমি চিরসখা,
আমি নারী তাই জল সইতে পারি
শত দু:খ বেদনায় আমিই বাঁচাতে পারি
জন্ম হতে আজ অবধি জীবনের মতো।

LEAVE A REPLY