‘খালেদা জিয়াকে সাধারণ কয়েদির মতো রাখা হয়েছে, এটা অন্যায়’

0
30

ঢাকা প্রতিনিধি: খালেদা জিয়াকে সাধারণ কয়েদির মতো রাখা হয়েছে উল্লেখ করে তার আইনজীবীরা বলেছেন, এটা অন্যায়।

শনিবার সন্ধ্যায় পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন সড়কের পুরাতন কারাগারের একটি কক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে তার আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ এ কথা বলেন।

এ সময় মওদুদ সাংবাদিকদের আরো বলেন, রায়ের সার্টিফাইড কপি হাতে পেলে আগামী সোম বা মঙ্গলবার বেগম জিয়ার জামিনের আবেদন করা হবে। একই সাথে রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে বিকেলে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদের নেতৃত্বে ৫ আইনজীবী। ব্যারিস্টার মওদুদসহ তারা হলেন- ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, ব্যারিস্টার আবদুর রেজ্জাক খান ও এজে মোহাম্মদ আলী।

শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের এই আইনজীবী প্রতিনিধি দল কারাগারে প্রবেশ করেন। সন্ধ্যায় তারা কারাগার থেকে বেরিয়ে সামনে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

কারাগারে প্রবেশের আগে জেলগেটে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ জানান, আইন অনুসারে ১৮ ক্যাটাগরির কারাবন্দী ডিভিশন পাবেন। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে ডিভিশন দেয়া হয়নি। তাকে যেখানে রাখা হয়েছে তা একটি নির্জন পরিত্যক্ত কারাগার। এখানে ফাঁসির আসামিদের যেভাবে রাখা হয় তাকে সেভাবে রাখা হয়েছে। আমরা যত দ্রুত রায়ের কাগজ পাব তত দ্রুত আপিল করব।

LEAVE A REPLY