চিরতা পাতার ৫ টি অসাধারণ উপকারিতা

0
284

চিরতা পাতা তেঁতো হলে কি হবে, এরও আছে কিন্তু একগাদা গুণ। আপনার এক গুচ্ছ রোগকে সারিয়ে সুস্থ করে তুলতে পারে চিরতা পাতা। তাই আজ থেকেই ব্যবহার করুন।
কথা তো নয় যেন চিরতার পানি! প্রচন্ড রকম তেঁতো স্বাদের বলেই হয়তো কেউ কটু কথা বললে তা চিরতার পানির মতোই তেঁতো লাগে। তবে স্বাদে যতই তেঁতো হোক না কেন, চিরতার গুণাগুণ আর উপকারিতার কিন্তু কোনো শেষ নেই!

চিরতা পাতা
চিরতার উপকারের নেই কোনো শেষ
চিরতার পাতা, ডাল সবকিছুই কাজে লাগে। এগুলো শুকিয়ে পানির সাথে ভিজিয়ে সেই পানি পান করলে আপনি পাবেন অসংখ্য উপকারিতা। আসুন, আজ আমরা জেনে নেই, চিরতার পানি আপনার জন্য ঠিক কতটা উপকারী অর্থাৎ আপনি কী কী উপকার পেতে পারেন এই চিরতার পানি পান করলে।
১. সংক্রামক অসুখ-বিসুখের বিরুদ্ধে লড়বে চিরতা
মেয়েটি নাক মুচ্ছে
চিরতা নানা রকম সংক্রামক অসুখ-বিসুখের হাত থেকে আপনাকে রক্ষা করবে। কারণ চিরতায় রয়েছে এমন কিছু উপাদান, যা সাধারণ সর্দি, কাশি প্রতিরোধ করে। দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এটি। সেই সাথে কাটা-ছেঁড়া ও ক্ষতস্থান দ্রুত সারাতে সাহায্য করে এই উপাদান।
২. নিয়ন্ত্রণে রাখুন আপনার ডায়াবেটিস
আপনি যদি ডায়াবেটিস রোগী হয়ে থাকেন, তাহলে তা নিয়ন্ত্রণ করতেই পারেন নিয়মিত ভাবে চিরতার রস পান করে। চিরতার রস রক্তে চিনির মাত্রা কমিয়ে দেয়। ফলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে।

৩. চুল পড়া রোধ করুন এখনই
অল্প বয়সে মাথার চুল সব পড়ে টেকো হওয়ার উপক্রম হলে কার ভালো লাগে বলুন! তাই চুল পড়তে আরম্ভ হলে আপনি চিরতার সাহায্য নিতে পারেন বৈ কী!
উপকরণ
২/৩ গ্রাম চিরতা ডাল-পাতা সহ।
পদ্ধতি
চিরতা ডাল-পাতা সহ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন পুরো ১দিন। পরের দিন সেই পানি ভালো করে ছেঁকে অল্প অল্প করে মাথায় লাগান। ১ ঘন্টা পরে গোসল করে ফেলুন। এভাবে ১ দিন পর পর ১ সপ্তাহ ব্যবহার করলে চুল পড়া রোধ করতে পারেন আপনি সহজেই।

৪. বমি বন্ধ করবে চিরতার পানি
গর্ভাবস্থায় কিংবা কোনো অসুখ-বিসুখে ক্রমাগত বমি হতে থাকলে চিরতা গুঁড়ো করে এক গ্লাস পানির সাথে একটু চিনি মিশিয়ে খেলে বমি সাথে সাথে বন্ধ হয়ে যায়।

৫. এলার্জি বা ত্বকে খোস পাঁচড়া হলে চিরতা ব্যবহার করুন
মেয়েটি পিঠ চুলকাচ্ছে


ত্বকে এলার্জি, খোসপাঁচড়া কিংবা কোনো ঘা হলে পরিমাণ মতো চিরতা সরিষার তেল দিয়ে ভেজে নিন। এবার সেটা ঠান্ডা করে অল্প অল্প করে চুলকানির জায়গায় লাগিয়ে দিন। এতে যে কোনো ধরনের চুলকানিই অল্প সময়ের মধ্যে ভালো হয়ে যাবে।

দেখলেন তো? এত তেঁতো একটা পানীয় কতো সহজেই আপনার কতগুলো সমস্যার সমাধান করে দিতে পারে? শুধু তাই নয়, তারুণ্য ধরে রাখতেও চিরতার রস পান করার কোনো জুড়ি নেই। তাহলে দেরী না করে আজ থেকেই না হয় একটু কষ্ট করে নিয়মিত পান করা শুরু করুন চিরতার রস? এতে আপনার শরীরের অনেক অনেক সমস্যার সমাধান তো হবেই, সেই সাথে আপনার ফিগার আর ত্বকও হয়ে উঠবে আকর্ষণীয়।

LEAVE A REPLY