টাটার ওয়ার্কসপ নির্মাণ বন্ধে পাবনা সুগার মিলের শ্রমিক-কর্মচারীরা মানব-বন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল বের করেন

0
1354

সেলিম আহমেদ ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি ॥ টাটার নির্মাণাধিন ওয়ার্কসপ বন্ধের প্রতিবাদে পাবনা সুগার মিলের শ্রমিক-কর্মচারীরা আজ সোমবার সুগার মিল গেটের সামনে দির্ঘ সময় মানব-বন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল বের করে টাটার বিরুদ্ধে শ্লোগান দিতে থাকেন। শিল্পমন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আবুল কাশেম টাটার নির্মাণাধিন ওয়ার্কসপ পরিদর্শনে আসেন। এসময় সাথে ছিলেন বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের আইন ও সম্পত্তি শাখার উপ ব্যবস্থাপক ড. মোঃ মহসীন আলী মন্ডল ও পাবনা সুগার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী একে এম তোফাজ্জল হোসেন।
পাবনা সুগার মিলের ওয়াকার্স ইউনিয়নের সভাপতি ইব্রাহিম হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান উজ্জ্বলের পরিচালনায় শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে মানব-বন্ধন শেষে বক্তব্য রাখেন আব্দুল মান্নান, জিল্লুর রহমান, আব্দুস সালাম, সাজেদুল ইসলাম, আইনুল হক, তাহাজুল ইসলাম মুকুল, রবিউল ইসলাম রবি, মঞ্জুরুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন, ইমদাদুল ইসলাম।
বক্তারা বলেন, মিলের সামনে ব্যক্তি মালিকানাধিন কোনো ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান না হওয়া প্রয়োজন। এই মিলে ডিষ্ট্রিলারী কিংবা সুগার থেকে জুস উৎপাদনের ব্যবস্থা করা প্রয়োজন রয়েছে। মিলের সামনে টাটার ওয়ার্কসপ নির্মাণ বন্ধের দবি তোলেন।
শিল্পমন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আবুল কাশেম বলেন, পৃথিবী এগিয়ে যাচ্ছে আমরাও এগিয়ে যাবো। অতিতে ক্রুটি ছিল তা সুধরে নিয়ে নতুন উদ্যোমে কাজ করতে হবে। এই মিলকে বাঁচিয়ে রাখতে হলে এই মিলের জনশক্তিকে কাজে লাগাতে হবে। কাজ শেষে শ্রমিকেরা পা গুটিয়ে বসে থাকেন। এই মিলের সংশ্লিষ্ট অন্য কোন শিল্পের ব্যবস্থা করে দিতে পারলে মিলের লোকশান কিছুটা হলেও কমে আসবে। বর্তমানে এক কেজি সবজির মূল্য ৬০ থেকে ৭০ টাকা কিন্তু চিনির মূল্য তার চেয়ে অনেক কম রয়েছে। আমরা ফ্যাক্টরীর মঙ্গল কামনা করছি। রাষ্ট্রের স্বদিচ্ছা থাকলে তা সম্ভব হবে।

LEAVE A REPLY