থামছেই না ‘বর্ণবাদী’ ট্রাম্প

0
122

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শুরু থেকেই বর্ণবাদী মন্তব্যের কারণে আলোচিত-সমালোচিত। গেলো নভেম্বরই ব্রিটেনের বর্ণবাদী একটি গ্রুপের ভিডিও টুইটারে প্রকাশ করে সমালোচিত হয়েছিলেন মার্কিন এই প্রেসিডেন্ট। তবুও থেমে নেই ট্রাম্প। বৃহস্পতিবারই হাইতি, এল সালভেদর ও আফ্রিকার কিছু দেশের মানুষকে ‘নোংরা’ বলেছেন। মূলত হোয়াইট হাউসে কংগ্রেস সদস্যদের সঙ্গে অভিবাসন নীতি নিয়ে এক বৈঠকের সময় এই শব্দটি ব্যবহার করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ট্রাম্পের ওই মন্তব্যের পর বিশ্বজুড়ে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
কেনিয়ার একজন বাসিন্দা বলেন, আমরা নোংরা দেশের লোক। ট্রাম্পের এ ধরনের মন্তব্য আমি মেনে নিতে পারছি না।
এদিকে ওই বৈঠকে থাকা ডেমোক্রেট সিনেটর ডিক ডারবিন বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এখন এ ধরনের কোনো শব্দ ব্যবহারের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। অথচ আজ সকালে আবারো টুইট করেছেন তিনি। এটা সত্য নয়। তিনি এই ঘৃণা সম্বলিত শব্দগুলো বলেছেন। তিনি অবিরত এ ধরনের শব্দ ব্যবহার করে যাচ্ছেন।
অথচ মার্কিন অধিকার আন্দোলনের জনপ্রিয় নেতা মার্টিন লুথার কিং জুনিয়রকে সম্মান জানানোর অনুষ্ঠানে দেখা গেলো ভিন্ন ট্রাম্পকে। তিনি বলেন, আমরা আজ মার্টিন লুথার কিংয়ের প্রতি সম্মান জানাচ্ছি। তার মতাদর্শ যা আমরা সব আমেরিকানরা বিশ্বাস করি। আমাদের গায়ের রঙ যেমনই হোক বা আমরা যেখানেই জন্মাই না কেন, আমরা সবাই ঈশ্বরের সৃষ্টি।
অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এই মন্তব্য পর শঙ্কা প্রকাশ করেছে আফ্রিকান ইউনিয়ন।
আর জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক মুখপাত্র রুপার্ট কোলভিল বলেছেন, যদি প্রেসিডেন্ট এসব কথা সত্যিই বলে থাকেন সেটা স্তম্ভিত হওয়ার মতো ও লজ্জাজনক। এটাকে ‘বর্ণবাদী’ বলা ছাড়া আর কিছু বলার সুযোগ নেই।
কংগ্রেসের এক কৃষ্ণাঙ্গ সদস্য সেডরিক রিচমন্ড বলেছেন, প্রেসিডেন্ট যে আমেরিকাকে আবারো সেরা দেশে পরিণত করার নামে আসলে শ্বেতাঙ্গদের দেশে পরিণত করতে চাইছেন, এটা তার আরো একটা প্রমাণ।

LEAVE A REPLY