নারী দিবসে ওপার বাংলার লেখক, কবি তমা বর্মণ এর নারী জাগরণের কবিতা ” নারী ‘’

0
472
লেখক, কবি তমা বর্মণ

          নারী

                   ——–
                   তমা বর্মণ

তোমার দহন তোমারই নারী;
ব্রহ্মযুগ থেকে এই একবিংশ শতক।

বৃক্ষমূল থেকে কখনো তুমি উৎপাটিত;
কখনো জড়িয়েছ বারো হাত কাপড়।

ছুটে গেছ কত অরণ্যভূমি —-
নিমেষে উজাড় করেছ তাতে বক্ষ সবুজ
ঝড় তুলেছ পায়ে দুর্বার গতিতে;
কখনো বিনাশে সৃষ্ট দুর্গা রূপী।

তুমি জননী তুমিই পুরুষধারিণী তুমি কন্যা —
দহনেই তুমি শুদ্ধ ; হয়েছ বহ্নিশিখা ।

ধানখেতে পড়ে থাকা তোমার শিশুঘুম
বে-আব্রু করে যায় যারা
নারীর বুক, কখনো হয় না খন্ড —
জানে না ওই মূর্খ ঘাতকেরা।

ছলনায় সিক্ত করে যে প্রেমিক তুলে নিয়েছে মধুরস
আজন্ম তাকে দয়া করে গেছে নারী ;
অনায়াসে পৌঁছে দিয়েছ স্বর্গ-দ্বারে তার মৃত্যুদিবস।

তুমিই শক্তি তুমিই দুর্ভিক্ষের কাতর যাপন —
শস্যপূর্ণা তুমি ;

হে নারী অসহিষ্ণুতায় তুমিই শীতল জলসিঞ্চন।

আজও পৃথিবী তোমার গাভিমুখ হয়ে চেয়ে থাকে —

দহন তোমার গৌরব নারী ;
এই অলংকার শুধু তোমাকেই সাজে।

লেখক পরিচিতি : তমা বর্মণের জন্মস্থান ত্রিপুরা। প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘নির্জন কোলাহল’ ২০১৭ আগরতলা বইমেলায় প্রকাশিত এবং প্রথম গল্পগ্রন্থ ‘মৃত্তিকা মন’ প্রকাশিত হতে চলেছে ২০১৮ আগরতলা বইমেলায়। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরার কিছু কাব্যসংকলনেও রয়েছে তার কবিতা। তার বিশ্বাস, মানসিক অন্ধত্ব দৃষ্টি অন্ধত্বের চেয়েও অন্ধকারময়।

LEAVE A REPLY