পাকিস্তানের ১১৭ আসনে জয়ী ইমরানের দল

0
22

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনের ২৭২টি আসনের মধ্যে ২৬৮টির ফল ঘোষণা করা হয়েছে। ৪টি আসনের ফল স্থগিত রয়েছে। নির্বাচনে ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) দল ১১৭ আসনে জয়ী হয়েছে। তবে সরকার গঠনের জন্য একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে আরও ২০টি আসন প্রয়োজন ইমরান খানের।

নির্বাচনে অপর দুই প্রধান দল কারাবন্দী নওয়াজ শরিফের পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন) পেয়েছে ৬৩টি আসন এবং বিলাওয়াল ভুট্টোর পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ৪৩টি আসনে জয় পেয়েছে।

এ ছাড়া মুত্তাহিদা মজলিশ আমল (এমএমএ) পেয়েছে ১১টি, মুত্তাহিদা কওমি আন্দোলন-পাকিস্তান (এমকিউএম-পি) ছয়টি ও গ্র্যান্ড ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (জিডিএ) দুটি আসনে জয়ী হয়েছে। খবর ডন অনলাইনের।

ফল ঘোষণা বাকি আছে দুটি। আর নির্বাচনের দিন কোয়েটায় বোমা বিস্ফোরণের জেরে অন্য দুটি আসনের ভোট গ্রহণ স্থগিত রাখা হয়।

মোট ৩৪২ আসনের পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের বাকি ৭০টি আসন নারী ও সংখ্যালঘুদের জন্য সংরক্ষিত। নির্বাচনে বিজয়ী দলগুলোর মধ্যে আনুপাতিক হারে ভাগ করা হবে এসব আসন। তবে এই ৭০টি আসন সরকার গঠনে কোনো ভূমিকা রাখবে না। কোনো দলকে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে সরাসরি নির্বাচনের ২৭২ আসনের মধ্যে ১৩৭ আসনে জিততে হয়।

ঘোষিত ফল অনুযায়ী ইমরান খানের পিটিআই জিতেছে ১১৭টি আসন। সরকার গঠনের জন্য তার আরও ২০টি আসনের সমর্থন দরকার। ফলে সরকার গঠনের জন্য ইমরানকে কারও সঙ্গে জোট করতে হবে।

গত ২৫ জুলাই পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের ২৭২টি আসনের ভোট গ্রহণ করা হয়। একই দিন অনুষ্ঠিত হয় চার প্রদেশের প্রাদেশিক পরিষদের ভোট। সেখানেও ভালো ফল করেছে পিটিআই। খাইবার পাখতুন খাওয়ায় প্রাদেশিক সরকার গঠন করার মতো সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে দলটি।

এ ছাড়া ৩৭১ আসনের পাঞ্জাব প্রদেশে ১২৩টি আসনে জয় পেয়েছে পিটিআই। নওয়াজের পিএমএল ১২৭ ও পিপিপি পেয়েছে ছয়টি আসন। এই প্রদেশে সরকার গঠনে প্রয়োজন ১৪৯ আসন।

সিন্ধুর ১৬৮ আসনের প্রাদেশিক পরিষদে পিটিআই জিতেছে ২৩টি আসন। পিপিপি সরকার গঠনরে মতো সংখ্যাগরিষ্ঠ ৭৪ আসনে জয় পেয়েছে। নওয়াজের পিএমএল কোনো আসন পায়নি। এখানে এককভাবে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজন ৬৮ আসন।

১২৪ আসনের খাইবার পাখতুন খাওয়া প্রাদেশিক পরিষদে ইমরানের পিটিআই পেয়েছে ৬৭টি আসন। এখানে নওয়াজের পিএমএল পাঁচটি ও পিপিপি চারটি আসন পেয়েছে। একক সংখ্যাগরিষ্ঠ পিটিআই এই প্রদেশে সরকার গঠন করবে।

স্থানীয় রাজনৈতিক দলের প্রভাবাধীন ৬৫ আসনের বেলুচিস্তান প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে পিপিপি ও পিএমএল কোনো আসন না পেলেও পিটিআই চারটি আসন পেয়েছে। বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টি (বিএপি) ১৪ আসন ও এমএমএ পেয়েছে নয়টি আসন।

LEAVE A REPLY