প্রতিভা সন্ধান কাব্য পরিষদ এর ০৬/০৬/১৮ তারিখের সেরা লেখা কবি প্রসেনজীৎ চট্টোপাধ্যায় এর কবিতা “শূন্য”

0
48

শূন্য

প্রসেনজীৎ চট্টোপাধ্যায়

শূন্য থেকে জন্ম নিয়ে শূন্যতে হয় শেষ
শূন্য থেকেই সৃষ্টি জীবন, নিখিলভুবন, দেশ ।
শূন্যর যে মূল্য কত বলতে আমি চাই
শূন্য দিয়েই শূন্যকে তাই সাজালাম ভাই ।
শূন্যে আজ ভাসছে মানুষ, ভাসছে উপগ্রহ
ভাসছে চন্দ্র, সূর্য, তারা, নবগ্রহ সহ ।
শূন্য না থাকলে কি আর সংখ্যা হত ভাই
মূল্য পেল সংখ্যা যত শূন্য থেকেই তাই ।
শূন্য পাতার মান বাড়াতে কলম এল হাতে
লিখছে লোকে কতকিছুই শূন্যতা ভরাতে ।
শূন্য ছিল বলেই তাই পূর্ণ পেল মান
শূন্য আছে বলেই ভরে শূন্যস্থান ।
ছুটছে মানুষ শহরেতে রেসের ঘোড়ার মত
শূন্য ঝুলি ভরতে গিয়ে খাচ্ছে হোঁচট কত ।
যতই ভরাও শূন্য ঝুলি, পূর্ণ হবে না
মোদের অপূর্ণতার পূর্ণতার নেই রে সীমানা ।
প্রাণপাখি আজ হৃদয় নীড়ে গুমরে কাঁদে হায়
শূন্যে খোলা বাতাসে তার পাখনা মেলা দায় ।
শূন্য ঘরে শূন্য ক্রোড়ে কাঁদছে জননী
সে শূন্যতা ভরছে না আর কপাল এমনই ।
কেন মুল্যবিহীন অমূল্য যা বিলুপ্ত সে হয় ?
সত্তা, বিবেক শূন্যতাকেই আঁকড়ে কেন রয় ?
দেখি অভাবের সংসারে সুখ শূন্য বালুচর
শূন্যতাকেই সঙ্গী করে সাজায় তাসের ঘর ।
আঁকড়ে ধরি মায়ের আঁচল শূন্য হাতে আসি
স্বপ্নপূরণ হয় তনয়ের মা রয় সেবাদাসী ।
শূন্য নিয়ে, শূন্য ঘিরে সৃষ্টি সাজানো
তবু শূন্য দিয়ে শূন্যতাকে যায় কি ভরানো ?
শূন্যতাকে পূর্ণতারই পড়াও অলঙ্কার
আসবে প্রভাত চিত্ত গুহায় রইবে না আঁধার ।।

 

LEAVE A REPLY