প্রযুক্তি যেন সর্বনাশের বাহন না হয় : রাষ্ট্রপতি

0
65

 খুলনা  প্রতিনিধি :    শিক্ষার্থীরা যাতে বিশ্বমানের শিক্ষা ও তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষ এবং নৈতিক মূল্যবোধসহ একজন পরিপূর্ণ মানুষ হতে পারে সেটা নিশ্চিত করতে হবে। বিশ্বের নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষা কার্যক্রম পর্যালোচনা করে নিজেদের জন্য যুগোপযোগী পাঠ্যক্রম এবং উন্নত পাঠদানের ব্যবস্থা করতে হবে। প্রযুক্তি উন্নয়নের বাহন। কিন্তু এ প্রযুক্তি যেন সর্বনাশের বাহন না হয় তা নিশ্চিত করতে হবে। বললেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ।

আজ (বুধবার) বিকেলে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) সমাবর্তনে ভাষণকালে একথা বলেন তিনি।রাষ্ট্রপতি বলেন, সময়ের সঙ্গে শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে ব্যর্থ হলে, তা যুগের চাহিদা পূরণে ব্যর্থ হবে। শিক্ষার সব পর্যায়ে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের ওপর করতে হবে।

আবদুল হামিদ বলেন, নতুন প্রকৌশলীরা তাদের সৃষ্টিশীল চিন্তা ও প্রযুক্তির যথাযথ ব্যবহার করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ভিশন-২০২১-এর আলোকে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে। প্রকৌশল ও প্রযুক্তিভিত্তিক শিক্ষা একটি জনগোষ্ঠীকে জনসম্পদে পরিণত করতে পারে।রাষ্ট্রপতি প্রকৌশলীদের পরামর্শ দিয়ে বলেন, প্রকৌশলীদের চিন্তা ও চেতনায় দূরদর্শী হতে হবে। আন্তর্জাতিক মানে নতুন প্রযুক্তির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তাদেরকে তাদের জ্ঞান ও দক্ষতার বিকাশ ঘটাতে হবে।অনুষ্ঠানে প্রখ্যাত বিজ্ঞানী ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. মোহামমদ আলী আসগর সমাবর্তন বক্তা ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, কুয়েট উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর, ডিন অধ্যাপক ড. কাজী হামিদুল বারি, অধ্যাপক ড. আবদুর রফিক, অধ্যাপক ড. মিহির রঞ্জন হালদার এবং রেজিস্ট্রার জি এম শহীদুল ইসলাম অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন।

LEAVE A REPLY