বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন করতে হলে শিক্ষার্থীদের জীবনকে সুন্দর ভাবে গড়ে তুলতে হবে…..ঈশ্বরদীতে ভূমিমন্ত্রী

0
316

সেলিম আহমেদ, ঈশ্বরদী থেকে ॥ বাংলাদেশ সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণ ঈশ^রদীতে বিএসবি ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপ ও সাপ্তাহিক ঈশ^রদীর উদ্যোগে আজ শুক্রবার এসএসসি কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। এসএসসির কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় ভূমিমন্ত্রী, ভাষা সৈনিক, বীরমুক্তিযোদ্ধা ও পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শামসুর রহমান শরীফ ডিলু এমপি।


সাপ্তাহিক ঈশ^রদী পত্রিকার সম্পাদক সেলিম সরদার এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএসবি ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের চেয়ারম্যান লায়ন এম কে বাশার, ভাইস চেয়ারম্যান লায়ন খন্দকার সেলিমা রওশন, ঈশ^রদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল মামুন, ঈশ^রদী উপজেলা চেয়ারম্যান মকলেছুর রহমান মিন্টু, বাংলাদেশ সুগারক্রপ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মোঃ আমজাদ হোসেন ও ঢাকাস্থ ঈশ^রদী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী খান উপস্থিত ছিলেন। পরে বিএসবি ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপ এর পক্ষ থেকে মন্ত্রীকে আজীবন সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।
ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদারতা ও প্রচন্ড সাহসিকতার মন নিয়ে দশ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে বিপদের সময় আশ্রয় দিয়েছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নিজের মুখে বলেছেন, ‘যেখানে ১৬ কোটি মানুষের খাবারের ব্যবস্থা আমরা করতে পারছি, আর ১০ লাখের ব্যবস্থাও হয়ে যাবে’। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদারতা ও সাহসী মনের এমন দৃষ্টান্ত বাঙালি জাতিকে বিশে^র কাছে স্মরণীয় করে রাখবে।
ভূমিমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন করতে হলে শিক্ষার্থীদের জীবনকে সুন্দর ভাবে গড়ে তুলতে হবে। তিনি বলেন, রুটিন মাফিক পড়াশুনা আর পিতামাতা, গুরুজন শিক্ষকদের আদেশ উপদেশ মেনে চললেই বঙ্গবন্ধুর এদেশ আদর্শের সোনার বাংলা হয়ে যাবে। মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের ছেলে মেয়েরা জার্মান, জাপান, আমেরিকা, ফ্রান্স, গ্রেট ব্রিটেনের ছেলে-মেয়েদের চেয়ে মেধার দিক দিয়ে কোন অংশে কম নয়। মন্ত্রী ২৫০ জন শিক্ষার্থীর মাঝে বিএসবি ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের শিক্ষা উপকরণসহ কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে সার্টিফিকেট ও মেডেল ক্রেস্ট বিতরণ করেন।
ভূমিমন্ত্রী আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ছিলেন কালজয়ী মহাপুরুষ। শত বছরের ইতিহাস এবং আগামি শতকের বিষয়ে তার ছিল স্বচ্ছ ধারণা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত কেন্দ্র স্থাপনে বিশেষ ভূমিকা রেখেছিলেন। কিন্তু পাকিস্তান সরকার সেই সময় তা বাস্তবায়ন হতে দেয়নি। জননেত্রী শেখ হাসিনা দৃঢ়তা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার সাথে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত কেন্দ্রের স্থাপন কাজ শুরু করেছেন এবং এর সফল বাস্তবায়নও নিশ্চিত করবেন। প্রধানমন্ত্রী তার পিতার পথ অনুসরণ করে বাঙালি জাতিকে উচ্চতর আসনে নিয়ে যাচ্ছেন। মন্ত্রী বলেন, আমরা দ্রুত ও স্বল্পতম সময়ের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছে যাবো। এর আগে মন্ত্রী ঈশ^রদী শেরশাহ রোডে ক্যামব্রিয়ান কলেজ ও গণগ্রন্থাগার এর জায়গার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধন করেন।

LEAVE A REPLY