বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্‌হাব মিঞা’র পদত্যাগ

0
17

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্কঃ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্‌হাব মিঞা পদত্যাগ করেছেন। শুক্রবার রাষ্ট্রপতি বরাবর তিনি পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন।
বঙ্গভবনের কর্মকর্তারা তাঁর পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন বলে জানা গেছে।
গেল ১০ নভেম্বর দেশের ২১তম প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহা পদত্যাগ করার পর প্রধান বিচারপতির পদ শূন্য থাকায় আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্‌হাব মিঞা ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। চলতি বছরের ১০ নভেম্বরে আবদুল ওয়াহ্‌হাব মিঞার অবসরে যাওয়ার কথা ছিল। মো. আবদুল ওয়াহ্‌হাব মিঞা সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের প্রবীণতম বিচারপতি ছিলেন।
শুক্রবার দুপুরে রাষ্ট্রপতি দেশের ২২তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। আগামীকাল শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় বঙ্গভবনে তিনি শপথ গ্রহণ করবেন।
সংবিধানের ৯৫ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রধান বিচারপতি নিয়োগের একমাত্র ক্ষমতা রাষ্ট্রপতির হাতেই। সংবিধানের ৯৫(১) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘প্রধান বিচারপতি রাষ্ট্রপতি কর্তৃক নিযুক্ত হইবেন এবং প্রধান বিচারপতির সহিত পরামর্শ করিয়া রাষ্ট্রপতি অন্যান্য বিচারককে নিয়োগদান করিবেন।’
শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর বেইলি রোডে মিনিস্টার্স অ্যাপার্টমেন্টে সাংবাদিকদের অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম জানিয়েছিলেন, রাষ্ট্রপতি সংবিধান অনুযায়ী প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দিয়েছেন। এতে সংবিধানের কোনো ধারা লঙ্ঘিত হয়নি।
আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠতম বিচারপতি আব্দুল ওয়াহ্‌হাব মিয়া ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করেন। জ্যেষ্ঠতার কারণে তাকে প্রধান বিচারপতি করা হতে পারে এমন গুঞ্জন ছিল নানা মাধ্যমে। শেষ পর্যন্ত তিনি চূড়ান্তভাবে নিয়োগ পাননি।
এ নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন হলেও কোনো ধরনের বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরি হবে না।

LEAVE A REPLY