ভারতের কবি মিঠু রাজবংশী এর অসাধারণ ভিন্নধর্মী কবিতা ‘‘’ তুমি এলে’’

0
370
কবি মিঠু রাজবংশী

তুমি এলে

মিঠু রাজবংশী

—————
আমার অহংকার ভাঙা কাঁচের মতো ঝুরঝুর করে ছড়িয়ে পড়লো,
যেদিন আমি কাঙাল হলাম। পাগলের মতো খুঁজেছি তোমায়। তুমি এলেনা।

আমার রূপ অপমানের আগুনে ভস্ম হোলো,
যেদিন আমি নিঃস্ব হলাম,
হাত জোড় করে তোমাকে পাশে চাইলাম তুমি এলেনা।
আমার কাছে আর কিচ্ছু ছিলনা।

আমি ভিখিরি হলাম। হাত পাতলাম।
হঠাৎ দেখি তুমি আমার সামনে।
আমার অভিমান হোলো,
ইচ্ছে তোমাকে বলবো না।
আমার অসহায়তার কথা।
কিন্তু তোমার চোখে একি…?
আমার শরীরের আর মনের সমস্ত ক্ষতচিহ্ন আঁকা!
আমার বুক ভেঙে কান্না পেল,
তুমি হাত বাড়ালে,
দেখলাম, আমার হাতের
বিফল আত্মহত্যার কাটা দাগটা
তোমার হাতেও স্পষ্ট!
অস্ফুটে একটা আর্তনাদ বেড়িয়ে এলো, ‘ ঈশ্বর ‘!

লেখক পরিচিতি: কবি মিঠু রাজবংশী উত্তর চব্বিশ পরগনা পশ্চিমবঙ্গ ভারতের মানুষ । কবি পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলায় স্নাতক হওয়ার পর স্নাতকোত্তর শিক্ষার জন্য কলকাতা রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে যান। সেখান থেকেই আবৃত্তি শিল্পী হিসেবে পরিচিতি পেতে থাকেন। লেখালিখির হাত ছিল ছোটবেলা থেকেই।বিভিন্ন অনুষ্ঠান সঞ্চালনার সুত্রে পত্র-পত্রিকার সঙ্গে পরিচয় ঘটতে থাকে। একটি দুটি লেখা প্রকাশিত হবার পর পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন পত্রিকায়ে তাঁর লেখা সাদরে গৃহীত হতে আরম্ভ করে। শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয় তার লেখা বাংলাদেশেও প্রকাশিত হয়। বর্তমানে একটি বিদ্যালয়ে শিক্ষকতার সঙ্গে যুক্ত।

LEAVE A REPLY