যারা বাংলা ভাষাকে রক্ষা করেছেন, তাদের শ্রদ্ধা জানাই

0
92
বক্তব্য দিচ্ছেন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি

ঢাকা প্রতিনিধি: ‘শুধু একুশে ফেব্রুয়ারি নয়, যারা আন্দোলন করে বাংলা ভাষাকে রক্ষা করেছেন তাদের শ্রদ্ধা জানাই, সালাম জানাই, প্রণাম জানাই। বাংলাকে যারা আন্তর্জাতিক ভাষার মর্যাদা এনে দিয়েছেন তাদের উদ্দেশ্যে শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে একুশে ফেব্রুয়ারি নয়, আমাদের জীবনের প্রতিদিন, প্রতিমুহূর্তে মনে রাখতে হবে- তাদের কাছে আমরা ঋণী।’

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) বিকেলে বাংলা একাডেমির নজরুল মঞ্চে আন্তর্জাতিক বাংলা সাহিত্য সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি এসব কথা বলেন।

এর আগে বিকেল ৩টায় অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হন ভারতের প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি। পরে তাকে ফুলেল অভ্যর্থনা জানানো হয়।

গত ১৩ জানুয়ারি বিকেলে বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি প্রণব মুখার্জি বলেন, বাংলাদেশই হচ্ছে বাংলা ভাষার রক্ষক। যারা আমাদের ভাষা, সংস্কৃতিকে হাজার বছরের সাহিত্য, ঐতিহ্যকে রক্ষা করেছেন তাদের কাছে আমরা দায়বদ্ধ। তারা আগ্রাসনে আমাদের অমূল্য রতনকে ধ্বংস হতে দেননি। আজ বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক ভাষা কিংবা সাহিত্য সম্মেলন হবে না তো কোথায় হবে? এর চেয়ে উপযুক্ত স্থান আরও আছে নাকি?

তিনি বলেন, কিছু কিছু মানুষ থাকে যারা ইট, বালি ইত্যাদি নিয়ে সিড়ি বেয়ে ওঠে রাজমিস্ত্রির কাছে মসলা (নির্মাণের তরল সিমেন্ট-বালি) পৌঁছে দেন। গ্রাম্য ভাষায় আমরা তাদের বলি যোগারি।

‘আমি হচ্ছি বাংলা সাহিত্য সম্মেলনের তেমনই একজন যোগারি। সেই যোগারি ও পাঠক হিসেবে আমি এখানে উপস্থিত হয়েছি। পড়তে ভালোবাসি। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে পড়ার সময় খুব একটু পাইনি।’

এর কারণ ব্যাখ্যা করে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি বলেন, পার্লামেন্টে চার দশকের বেশি সময় সদস্য ছিলাম। ১৯৬৯ থেকে ২০১২ পর্যন্ত। প্রায় ২৫ বছর মন্ত্রী ছিলাম। সরকারি কাজ, সংসদের কাজের ঠেলায় পড়ার সময় পাইনি।

‘রাষ্ট্রপতি ভবনে গিয়ে দেখলাম ভারতবর্ষের ত্রয়োদশ রাষ্ট্রপতির রয়েছে বিশাল রাজপ্রাসাদ। পরিসংখ্যানবিদদের মতে, পৃথিবীর কোনো রাষ্ট্রপ্রধানের

LEAVE A REPLY