যেখানেই মাদক, সেখানেই কঠোর ব্যবস্থা : প্রধানমন্ত্রী

0
42

ঢাকা প্রতিনিধি: আমরা যেমন জঙ্গিবাদকে দমন করেছি। তেমনি আমরা অঙ্গীকার করেছি, এই মাদক থেকে দেশকে রক্ষা করব। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
রোববার গণভবনে খুলনার নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলররা শুভেচ্ছা জানাতে এলে একথা বলেন শেখ হাসিনা।
খুলনার নবনির্বাচিত মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক আওয়ামী লীগের বিজয়ে দলের সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফুলের তৈরি নৌকা দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।
শেখ হাসিনা বলেন, আপনারা নিশ্চয়ই লক্ষ্য করছেন যে, মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান কিন্তু শুরু হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, সমস্ত আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীকে বিশেষ দায়িত্ব দিয়েছি। যেখানেই মাদক, সেখানেই কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং সেই কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছি।
শেখ হাসিনা বলেন, দলের নেতা-কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে যে কোনো নির্বাচনে জয়লাভ আওয়ামী লীগের জন্য কোনো কঠিন কাজ নয়, তা আবার প্রমাণিত হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সরকারে এসে দিনবদলের সনদ বাস্তবায়নের মাধ্যমে বিগত ৯ বছরে দেশের মানুষকে উন্নত জীবন দিতে সক্ষম হয়েছি। জনগণের ভোট ও সমর্থন আওয়ামী লীগের পক্ষে রয়েছে। যতগুলো আন্তর্জাতিক সংস্থা সার্ভে করেছে তারা দেখেছে গণমানুষের আস্থার জায়গায় আওয়ামী লীগের অবস্থান অনেক ওপরে।
শেখ হাসিনা বলেন, নির্বাচন কমিশন পুরোপুরে স্বাধীনভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করেছে। তারা দলীয় মন্ত্রীদের নির্বাচনী প্রচারে অংশগ্রহণ করতে দেয়নি। নির্বাচন কমিশনের যে রকম নিয়ম, তাতে আমাদের হাত-পা বাঁধা।
তিনি বলেন, খুলনা সিটি নির্বাচন অত্যন্ত সুষ্ঠু হয়েছে। এতো সুষ্ঠু নির্বাচন বাংলাদেশে কবে হয়েছে? তারপরও যারা এই নির্বাচন নিয়ে কথা বলে তাদের আমি এই জবাব দিতে চাই না। বাংলাদেশে নির্বাচন নিয়ে যে খেলা, সীল মারা, ভোটের বাক্স চুরি করাসহ যত অপকর্ম হয়েছে তা শুরু করে গেছেন জিয়াউর রহমান।
প্রধানমন্ত্রী ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত করে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত করে গড়ে তোলায় তার রাজনৈতিক অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে দলের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, শেখ হেলাল এমপি এবং দলের কেন্দ্রীয় ও খুলনার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৫ মে খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ায় নবনির্বাচিত মেয়র এবং খুলনাবাসীকে অভিনন্দন জানান।

LEAVE A REPLY