রক্তাক্ত যশোর ৩ দিনে ৬ জনের মরদেহ উদ্ধার।

0
39

মীর ফারুক যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ যশোর যেনো রক্তাক্ত এক জনপদ নাম।গত ০৩ দিনে যশোরে প্রতিপক্ষের সাথে বন্দুকযুদ্ধে অজ্ঞাত ৬ ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করছে পুলিশ।সোমবার যশোর সাতমাইল-মথুরাপুর রেল লাইনের উপর থেকে ২ জনের ছিন্নভিন্ন মরদেহ উদ্ধার করে জিআরপি পুলিশ,তার পরের দিন মঙ্গলবার মনিরামপুর গাঙ্গুলিয়া জামতলা থেকে অজ্ঞাত ২ জন ডাকাতেরর গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে মনিরামপুর থানা পুলিশ।
ফের আজ বুধবার যশোর কানাইতলা এলাকা থেকে অজ্ঞাত ২ জন ডাকাতে গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধারর করছে কোতয়ালী থানা পুলিশ।যশোরে একের পর এক হত্যাকান্ডের ঘটনায় এই অঞ্চলে বসবাসকারী মানুষের মধ্য বিরাজ করছে আতংক।সন্ত্রাসীরা কিভাবে প্রতিদিন এভাবে মানুষ হত্যা করে পালিয়ে যাচ্ছে,এসব ঘটনার কোন ক্লু উদঘাটন করতে না পারায়,
আইনশৃখলা বাহিনীর ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

বুধবার রাতে যশোর কোতয়ালী থানা পুলিশ যশোর-মনিরামপুর সড়কের কানাইতলা এলাকা থেকে অজ্ঞাত ২ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে,পুলিশের দাবী তারা ডাকাত দলের সদস্য ছিলো
,ডাকাতির প্রস্তুতিকালে নিজেদের মধ্য গোলাগুলিতে তারা মারা গেছে।তাদের মাথায় গুলির চিহ্ন রয়েছে।তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

ঘটনাস্থল থেকে ৩টি হাঁসুয়া,১ টি করাত, কয়েকটি রশি, উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত দুজনের একজনে পরনে লুঙ্গি,শার্ট পড়া বয়স আনুমানিক ৩৫ বছর,অপর জনেন পড়নে প্যান্ট,শার্ট পড়া বয়স আনুমানিক ৪৫ বছর হবে

২৫ ই জুলাই বুধবার রাত আনুমানিত ৩ ঘটিকার সময় যশোর-মনিরামপুর সড়কে কানাইতলা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

কোতয়ালী থানার (ওসি)অপুর্ব হাসান জানান বুধবার রাত ৩ টার দিকে খবর পায়,যশোর-মনিরামপুর সড়কে কানাইতলা এলাকায় ডাকাতরা ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে,এমন সংবাদে এস আই কাইয়ুম এর নেতৃত্বে সেখানে অভিযানে গেলে সেখানে গিয়ে তারা দুজনের গুলিবিদ্ধ মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে।এবংঘটনাস্থল থেকে কয়েক জনকে দৌড়ে পালাতে দেখে,মরদেহ গুলো উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ দুটি যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে,এ বিষয়ে মামলা প্রস্তুতি চলছে।

LEAVE A REPLY