হাইকোর্ট থেকে অগ্রিম জামিন পেয়েছে হাসান জহিরসহ ১৫

0
27

মীর ফারুক যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ নাশকতার একটি মামলায় যশোর শার্শা উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক,সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হাসান জহির সহ ১৫ জন আসামী হাইকোর্ট থেকে অগ্রিম জামিন নিয়েছে বলে জানা যায়,১০ ই জুলাই এডভোকেট নিতায় রায় চৌধুরী হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ এর আসামীদের পক্ষে অগ্রিম জামিনের আবেদন করে,হাইকোর্ট ওই বেঞ্চ শুনানী শেষে হাসান জহির সহ সকল আসামীকে ৭ সপ্তাহের অগ্রিম জামিন মন্ঞুর করে।

মামলার এজাহার সু্ত্রে জানা যায় গত ০২ জুলাই সোমবার কেন্দ্রীয় ঘোষিত যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল করার প্রক্কালে বিকাল ৫ ঘটিকার সময় শার্শা নাভারন বাজার থেকে যুবদলের তিন জন কর্মি, ০১, মহির হোসেন পিতা সুন্নত আলী ০২,সাইফুল ইসলাম সুমন পিতা আঃ রাজ্জাক মোল্ল্যা ০৩,হুসাইন আহম্মদ পিতা আকরাম আলীকে আটক করে শার্শা থানা পুলিশ,
পরে শার্শা থানা পুলিশের এস আই রোকনুজ্জামান বাদী হয়ে আটকৃত তিন জন ও শার্শা উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আবুল হাসান জহির সহ ১৮ জনের নামে কথিত নাশকতার অভিযোগে মামলা দায়ের করে,শার্শা থানায় মামলা নং ০৮,
পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৭ টি হাত বোমা ও কয়েকটি লাঠি উদ্ধার করে দেখিয়েছিল।

হাইকোর্ট থেকে অগ্রীম জামিন প্রাপ্তরা হলো ১,শার্শা উপজেলা বিএনপি সাধারন সম্পাদক দক্ষিণ বুরুজ বাগান গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফ বিশ্বাস এর ছেলে আবুল হাসান জহির, ০২উওর বুরুজ গ্রামের মৃত ন’মিয়া ছেলে ও শার্শা থানা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক সালাহ উদ্দিন ,০৩ কাজিরবেড় গ্রামের মৃত শহর আলীর ছেলে জেলা কৃষকদলের যুগ্ন সম্পাদক সাকাওয়াত হোসেন, ০৪ দক্ষিণ বুরুজ গ্রামের মৃত আবুল ফজল বিশ্বাস এর ছেলে থানা ছাত্রদলের দ্প্তর সম্পাদক,হাসান জহিরের ভাইপো ওয়াসি উদ্দিন জিন্নাহ,০৫ দক্ষিণ বুরুজ গ্রামের মৃত গোলাম হোসেন ছেলে সিরাজুল ইসলাম, ০৬ একই গ্রামের আমিন হোসেনের ছেলে আব্দুল অহেদ,০৭নাভারন যাদবপুর গ্রামের মৃত হানিফের ছেলে জনি ইসলাম, ০৮ বলিদাদহ গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে রুহুল আমিন, ০৯ আব্দুল মালেক এর ছেলে শহিদুল ইসলাম,১০,টেংরা গ্রামের মোজাম বিশ্বাস এর ছেলে রকি বিশ্বাস,১১ বাঁগআচড়া মৃত আবু সিদ্দিক মোড়ল এর ছেলে সাইফুল ইসলাম সোহাগ,১২বাগআচড়া গ্রামের কাসেদ মেম্বার এর ছেলে ও বাগআচড়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন ১৩,কাসেদ মেম্বার অপর ছেলে কবির হোসেন ১৪,মৃত শহিদ হোসেন এর ছেলে সেলিম হোসেন আশা ১৫ সাতমাইল গ্রামের মৃত লুতফর রহমান এর ছেলে মাষ্টার জামাল হোসেন।

LEAVE A REPLY